Chattogram Songlap
বৌভাতে প্রতিবেশীকে দাওয়াত না দেওয়ায় পাত্রপক্ষকে মারধরের অভিযোগ

বৌভাতে প্রতিবেশীকে দাওয়াত না দেওয়ায় পাত্রপক্ষকে মারধরের অভিযোগ

চট্টগ্রাম সংলাপ ডেস্ক: ভারতে একটি বৌভাতের অনুষ্ঠানে দাওয়াত না দেওয়ায় প্রতিবেশীরা পাত্র ও তার বাবাকে মারধর করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

মঙ্গলবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের ক্যানিংয়ের দাঁড়িয়া গ্রামে।

ভারতের আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়, করোনা সংক্রমণের জেরে রাজ্যের সর্বত্র জনসমাগমের ওপর বিধিনিষেধ আরোপ করে সরকার। বিয়ে বা অন্যান্য অনুষ্ঠানে ৫০ জনের বেশি লোক সমাগম করা যাবে না বলেও নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে।

সরকারি সেই নির্দেশিকা মেনে দিন কয়েক আগে একেবারে ঘরোয়াভাবে ঘনিষ্ঠ আত্মীয়-বন্ধুবান্ধবদের নিয়ে বৌভাতের অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন দাঁড়িয়া গ্রামের রমেশ সর্দার ও তার পরিবার।

অভিযোগ, বৌভাতের রাত থেকেই প্রতিবেশী বাপি সর্দার, ভোম্বল সর্দার, স্বপন সর্দার-সহ আরও কয়েকজন ইট-পাটকেল ছুঁড়তে থাকে রমেশের বাড়িতে। প্রথম দু-একদিন বিষয়টি বুঝতে না পারলেও, পরে তারা জানতে পারেন বৌভাতে দাওয়াত করা হয়নি বলেই প্রতিদিন রাতে তাদের বাড়ি লক্ষ্য করে ইট, পাটকেল ছুঁড়ছেন পড়শিরা। মঙ্গলবার রাত ২টার দিকে একই ঘটনা ঘটে। এ দিন বিষয়টি হাতে-নাতে ধরে ফেলেন রমেশের বাবা বঙ্কিম সর্দার।

অভিযোগ, তখন আচমকাই বঙ্কিমকে ধারালো দা দিয়ে আঘাত করে অভিযুক্তরা।
বাবাকে বাঁচাতে রমেশ সেখানে গেলে তাকেও মারধর করা হয়। মাথা ফাটে তার। তাদের চিৎকার চেঁচামেচিতে বেরিয়ে আসেন আশেপাশের অন্য লোকজন। তড়িঘড়ি দু’জনকে ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্তরা পলাতক। বুধবার সকালে হাসপাতালের বিছানায় বসে রমেশ বলেন, করোনা পরিস্থিতির জন্যই সেভাবে কাউকে নিমন্ত্রণ করিনি। দু’চারজন বন্ধু-বান্ধব নিয়ে অনুষ্ঠানটা করি। ওদের কেন নিমন্ত্রণ করিনি, সেই কারণেই আমাদের ওপর এই অত্যাচার শুরু করছে ওরা।

রমেশের অন্য প্রতিবেশী মঙ্গল সর্দার বলেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে অনেককেই নিমন্ত্রণ করতে পারেননি ওরা। তা বলে এভাবে অত্যাচার করবে? ওদের শাস্তি হওয়া দরকার।

বুধবার সকালে এ বিষয়ে ক্যানিং থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন আক্রান্তরা। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

আরও পড়ুন: করোনা রোগীকে কী বলবেন, কী বলা উচিত না

csonglap,net

আরও পড়ুন

বিশেষ ফ্লাইটে বাড়তি ভাড়া বন্ধের দাবি সুজনের

newsdesk

মে দিবস : তাদের নিয়ে বিশেষ দিন, জানেন তারা?

newsdesk

বাইরে থেকে ঘরে ফিরে যা করা জরুরি

newsdesk